বরিশাল সদরের দক্ষিণে সাগরদী, রূপাতলী এবং পুরাতন জাগুয়া ইউনিয়ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকা। এই এলাকারই এক স্বনামধন্য সুপরিচিত নাম আবদুল ওয়াহেদ মিয়া। শিক্ষিত - সৎ - সজ্জন সমাজসেবক হিসেবে তাঁর জনপ্রিয়তা ছিল ঈর্ষণীয়। এলাকাবাসীর ব্যাপক চাহিদার প্রেক্ষিতে সরকারি চাকরি ত্যাগ করে তিন তিনবার তিনি ৬ নং জাগুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন। সমাজসেবার পাশাপাশি ১৯৬০ সাল থেকে তিনি পারিবারিকভাবে রিয়েল এস্টেটের ব্যবসা শুরু করেছিলেন। এই ব্যবসাতেও তাঁর সততার ইতিহাস আজও এলাকাবাসী শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে। তাঁরই হাত ধরে তাঁর বড় পুত্র আবদুস ছালাম মিয়া স্কুল- মসজিদ – মাদ্রাসা তৈরি সহ বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজের পাশাপাশি রিয়েল এস্টেট ব্যবসাকে আরও বেগবান করে তোলেন । তিনিও ৬ নং জাগুয়া ইউনিয়নের অত্যন্ত জনপ্রিয় চেয়ারম্যান হিসেবে আজও মানুষের মনে বিবেচিত হয়ে আসছেন।

নির্ভেজাল জমি ক্রয় - বিক্রয়ের ক্ষেত্রে পিতা আবদুল ওয়াহেদ মিয়ার মতো পুত্র আব্দুস ছালাম মিয়াও অত্যন্ত সুনাম অর্জন করেন। ২০১৮ সালে আব্দুস ছালাম মিয়াঁর মৃত্যু পরবর্তীকালে আবদুল ওয়াহেদ মিয়ার অন্যান্য পুত্র এবং নাতিদের মধ্যে পারিবারিক এই ব্যবসা সম্প্রসারিত হয়। বর্তমানে আমরা ছালাম মিয়া হাউজিং বহু মানুষের হৃদয় জয় করে বরিশাল শহরে বিভিন্ন রিয়েল এস্টেট কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছি। দীর্ঘ ৬০ বছরের অভিজ্ঞতা, সুনাম ও সততাই আমাদের একমাত্র মূলধন।